I.P.L. 2016: XI of the Season

After providing some non-stop cricketing entertainment for last two months, the 9th edition of Indian Premier League has come to its end with one of the underrated teams – SunRisers Hyderabad, led by a valiant David Warner, clinching the trophy yesterday midnight.

Let’s have a glimpse on the I.P.L. Season 9 Combined XI based on the best performances in all forms (Batting, Bowling, Fielding, Wicket-keeping, Captaincy) as displayed throughout the tournament:-

  1. DAVID WARNER (CAPTAIN) [SRH]
  2. VIRAT KOHLI (VICE-CAPTAIN) [RCB]
  3. AB DE VILLIERS [RCB]
  4. KRUNAL PANDYA [MI]
  5. DWAYNE SMITH [GL]
  6. NAMAN OJHA (WICKET-KEEPER) [SRH]
  7. ANDRE RUSSELL [KKR]
  8. YUZVENDRA CHAHAL [RCB]
  9. BHUVNESHWAR KUMAR [SRH]
  10. MUSTAFIZUR RAHMAN [SRH]
  11. DHAWAL KULKARNI [GL]

collage_photocat

                                   While Virat Kohli had been continuing his form of life into IPL as the Royal Challengers Bangalore Opening Batsman-cum-Skipper, David Warner surprised everyone as the captain of the champion team SunRisers Hyderabad, as throughout the season, he pulled his team scorecard through tremendous destructive consistent batting as an opener! The South African class batsman AB de Villiers chased the higher scores with sky-touching strike rate for the RCB. His 129 not out against the Gujarat Lions was the highest individual score this season.

Coming to the middle order, it’s the debutant elder brother of World T20 heartthrob Hardik Pandya – Krunal Pandya, who stole all the praises with his demolishing batting and part-time off-spin for the Mumbai Indians. Dwayne Smith – the Gujarat Lions opener who was pushed to no. 5 in the batting order during the later stage of the tournament, scored many runs at a huge strike rate, as well as, bowled some useful overs, even taking a 4/8 against Kolkata Knight Riders on a green Kanpur pitch! Naman Ojha of Sunrisers Hyderabad led the catching tally, and he had grabbed some spectacular unbelievable catches too. Andre Russell had been an inseparable part of the Kolkata Knight Riders squad, because be it death bowling or be it high required run rate, Russell solved numerous problems for KKR under massive pressure until he got injured.

Among the spinners, Yuzvendra Chahal of Royal Challengers Bangalore bowled good and is rewarded the opportunity to represent the national team soon in Zimbabwe. Dhawal Kulkarni showed his consistency over different surfaces all over India, taking 18 wickets for his team at a decent economy rate. The pacers squad for this IPL invented one and reinvented another as the best duo, that too from the champion team – Bhuvneshwar Kumar (the Purple Cap holder) and Mustafizur Rahman (Best Emerging Player of this season). Bhuvi too played one cameo innings of 21 off 7 balls which helped SRH clinch an important victory. Mustafizur had troubled some good batsmen with his controlled bowling, off-cutters and yorkers and took 17 wickets maintaining an economy of just 6.90.

Though they don’t feature in the best XI, Gautam Gambhir, Rohit Sharma, Ajinkya Rahane, Murali Vijay, Lokesh Rahul, Shane Watson, Mitchell McClenaghan, Adam Zampa and Chris Morris had a good IPL this year.

Resham Das

The Bridge of Destiny

SUMANA SAHA

I stood on the Bridge of Destiny
Without any decent company
I stood on the bridge of fallen hopes
Where people live hanging on a rope
I stood on the bridge of broken dreams
I could hear there violent screams
The bolt of lightning shattered the silence
The night grew even more intense
Just then I came face to face with the devil
He was sinister, diabolical and pure evil
Then I realized the door of destiny was locked
I was left terrified and shocked
The sinister demon tried to choke me to death
But I did not lose my faith
I was confident to succeed in my present quest
And that determination did the rest
Miraculously the demon suddenly disappeared
And the door to destiny magically reappeared
Finally I reached my ultimate destination
And it was just a reward for my determination.

~Unique and United~

Pallavi Ekbote

We are Indians, unique & united;
Whatever you do, we’ll never get divided,
Whether it’s East-West or it’s North-South;
Everyone comes & stays like it’s a house.

Regions are different but nation is one;
Together we live and shine like the Sun,
Religion and Caste though break us apart;
Integrity always stays in our hearts.

Culture, language, values and norms;
All are unique in structures and forms,
Together we swim and together we sink;
With virtues and vices we accept everything.

We all have that uniqueness;
We all have that unity,
Feeling proud we thank to God;
For blessing us such prosperity!

For Forgiveness, Where do I start?

SUMANA SAHA

The summer we met how could I have known
I saw you the first time standing alone
I was new to the crowd and a bit scared
I needed a friend who really cared
I never thought it would be you,
Who’d come when I was down
I always felt if my life flooded you’d just
Let me drown.

I don’t know how it happened,
You were suddenly my best friend
I sat and listened to you cry
Your broken heart I tried to mend.

You told me about the girl you loved
I told you to be patient and look up above
I asked you to have faith in God
And genuinely pray
You said that you had, So I prayed everyday.

I’m sorry for everything you’ve been through
It must have been very hard for you
I’m sorry for not making everything right
But the situation I was in, was very tight
I’m sorry if it seemed like I didn’t care
Lucky for you, your special-someone was there
I’m sorry for breaking your heart
For forgiveness, where do I start?

রোজনামচা ২

বিশ্বাস করুন একেবারেই কাজ বলে কিছু নেই। ছাদে উঠে বিকেলবেলায় একটা ভেতর থেকে একটা খুশি খুশি থাকার চেষ্টা করছিলাম। মনে মনে একটা গুনগুন করে গাইছিলাম ‘বন্ধু তোমায় এ গান শোনাবো বিকেলবেলা’। পাশের ফ্ল্যাটটার তিন তলায় এক নতুন ভাড়াটে দম্পতি এসেছে তাদের তরুণী কন্যা সমেত। বিকেলের দিকে মাঝে সাঝে দেখেছি তাকে বারান্দায় ফোনটা হাতে নিয়ে এসে দাড়াতে – চোখাচুখি হলেই একটা তাচছিল্য ভরা looks দিয়ে আবার ভেতরে চলে যা্য় – যেন উনি মমতা আর আমি সূর্যকান্ত মিশ্র। সে যাইহোক আজকে তাই সই। একটা pseudo প্রেম প্রেম ভাব আজকে হাওয়ায় – ফুরফুরে বিকেলবেলা।

কিন্তু man proposes god disposes। প্রথমেই ছাদে উঠে মেজাজ তা খিঁচরে গেলো দেখে যে তিন তলার বারান্দার দড়িতে ঝুলছে আজ একটা চল্লিশ কোমরের ফ্যাকাশে খয়েরি রঙের জাঙিয়া(পুরুষ)। civic sense বলে যে একটা বস্তু হয় বাঙ্গালী কোনকালেই সেটা শিখে উঠতে পারলো না – বাড়ির কর্তা বা গিন্নী যিনিই কাজটা করে থাকুক তার অন্তত এইটুকু বোঝা উছিত যে ওরকম একটা দর্শনীয় বারান্দায় ও জিনিস শোভা পায় না। দেখলেই বোঝা যাচ্ছে জাঙ্গিয়ার original colour টি মেরুন কিংবা লাল ছিল – দীর্ঘদিন বিভিন্ন যুদ্ধে সসম্মানে উত্তীর্ণ হয়ে আজ তার দেহ রাখার সময় এসে গেছে( rather সময় পেরিয়ে গেছে, এখন বেঁচে থাকা টা ওই ventilator এর সাহায্য নিয়ে বেঁচে থাকার সমান)। দেহদান করে গেলে ন্যাকরা রুপে পরিণত হবে। বুঝতে পারলাম ললনার ওই তাচছিল্য ভরা চাহনির উৎস – ঘরের ভিতর থেকে বেরিয়ে আসা সমস্ত frustration বারান্দায় এসে manifested হয় ওই চাহনি তে। হাল আমি সহজে ছারিনি – ভাবছিলাম ওই ঝোলানো জাঙ্গিয়া আর মোজার মধ্যে দিয়েই আসবে বেরিয়ে সে আজকেও। কিন্ত না সেরম কিছু হল না – উল্টে কোথা থেকে সেই অসহ্য প্যাচপ্যাচে গরম তা ফিরে এল। পিঠের ঘামাচি গুলো আবার নড়েচড়ে বসল – ফুরফুরে ness তুরী টে উধাও।

ভাবনাচিন্তারও হঠাৎ করে একটা যেন প্রসার ঘটল। প্রেম, গান, চন্দ্রবিন্দু, বিকেলবেলা সবই মনে হতে লাগলো ‘তুচচছোঁ’। আমাদের জীবনের উদ্দেশ্য কি – শুধুই কি বিকেলবেলা ছাদে এসে দাঁড়ানো? দেশে আজকে এতো খুনোখুনি কেন- মানব সমাজ কোন পথে অগ্রসারিত হয়েছে? Bermuda Triangle এর রহস্য কি কোনদিন সমাধান হবে না? মানুষ আর সাধারণ মানুষে তফাত কি – সাধারণ মানুষ কাকে বলে?

সাধারণ মানুষ সেই, পাটিগণিতের problem sum দেখলে যার হাত পা সেঁধিয়ে যায়, আবার রবিন্দ্রানাথের সাধুভাষার প্রবন্ধ এক paragraph পড়েই যে ‘বুঝেছি’ বলে দিব্যি মাথা নেরে দেয়। যে না মাথার ওপর বিস্তৃত galaxy নিয়ে উৎসাহী (মোবাইল নয়), না পায়ের নিচের tectonic প্লেটের নড়াচড়া নিয়ে উৎসুক। যে শুধু তাই করতে শিখেছে যা অন্য সবাই করে আর ক্যামেরার সামনে ক্যালানে হাসি হেসে pose দেয়।

সন্ধ্যে নামছে। নাহ বিকেল টা মোটামুটি কাটিয়ে তো দিলাম কোনরকম accessory(পরুন মুখপুস্তিকা{facebook}) ছাড়া। আজকের বাজারে কম বড় achievement তো না এটা। এরপর ফাটিয়ে একটা চান করে মুড়ি চা নিয়ে বসে সন্ধ্যেটাও কেটে যাবে। হ্যাঁ আপাত দৃষ্টিতে পুরো ব্যাপারটাই খুব ম্যান্দামারা আর ‘সাধারণ’ । কিন্ত কোথাও একটা ‘awe’(অ) সাধারনত্ত কিন্ত সাধারণ ব্যাপারগুলোর মধ্যেও থেকেই যায়।

দ্রষ্টব্য ঃ- philosophy খুজবেন না, just পড়ুন।

Twin Souls

SUMANA SAHA

Yours is a beauty for the rich to behold

You are a picture painted in colours bold

Your smile is a blooming rose

when I first saw you, I simply froze

Your lips are an infinite ocean of red

On your comforting shoulders, I can rest my worried head

Your eyes are jewels, Your face is a crown

They are exquisitely carved — each smile and frown

Your walk is a dance, your speech; a song

My heart is yours and my heart; do you belong

Your hands are lovely — So soft and fair

Long black velvet is your silken hair

Your laugh is a melody which I long to hear

It cleans my heart of anger, hate and fear

Your tears bring mine to my eyes

You are my goal, You are my prize.

নির্বাসিত তসলিমা

SUBHAS GAYEN

নির্বাসিত আমি,নির্বাসিত আমার সহস্র আনাগোনার পথ।

যে পথের ধুলো আমায় বারবার পা জড়িয়ে ধরে,

যে শুকনো পাতা আমায় জানান দেয় অহেতুক আগুন্তুকের কথা,

যে চৌরাস্তার হট্ট-গোল আমায় চুপি চুপি বলে,

ইচ্ছে করে ভুলে যাওয়া ,

গান-ওয়ালার হাত ধরে বড় হওয়া ছোট-বেলার কথা,

সেখানে আজ আমি নির্বাসিত,নির্বাসিত আমার মুক্ত মতামত।।

নির্বাসিত আজ আমি ,নির্বাসিত আমার গণতন্ত্রের গর্ব।

যে ভাষাগুলো ছিল আমার জন্মগত,

যে শব্দ গুলো ছিল আমার রক্তের গভীরে,

সেই লেখা গুলো আজ তোমরা যত-ই বন্দী করো,

তারা অনেক আগেই পালিয়ে গেছে অনেক হাতের ভিড়ে,

দেশে-র দালাল , তোমরা বুঝবে কি!প্রকৃত নির্বাসনের আক্ষরিক অর্থ।।

নির্বাসিত আজ আমি,নির্বাসিত আমার সমস্ত অভ্যাস।

যে দুই আঙুলের মাঝে ব্যস্ত কলম খুব প্রিয়,

ঠিক তেমন-ই সিগারেট ছাড়া লেখাগুলো অসমাপ্ত,

সিগারেট নিজে নাকি নারী-বিরোধী,

এই তোমাদের গল্প, হলো তো অনেক!

সত্যি রুখতে ,শেষে ধোঁয়া নিয়ে রাজনীতি করছ,

মেয়ে হয়ে নাকি করছি মেয়ের শরীরের সর্বনাশ!!

নির্বাসিত আজ আমি , নির্বাসিত আমার সমস্ত স্পর্শ,

যে স্পর্শ আমাকে চিনিয়েছে দেশের মাটি -কে,

যেখানে হাঁটতে গিয়ে বারবার তোমাকে ছুঁতে হয়েছে,

সেই ছোঁয়ায় নাকি অশ্লীল যৌনতার ছাপ,

তোমরা যাকে নগ্ন করেছ ,তাকে নিয়ে লেখা কি পাপ?

সত্যি বলতে, নির্বাসন আজ আমার নয়,

অচ্ছুত আমার কাগজ কলম।

নির্বাসিত তুমি,নির্বাসিত তোমার দেশ ,

তোমার মা, আর তোমাদের জন্য-ই কলম ধরবে লক্ষ, লক্ষ

নির্বাসিত তসলিমা।।